urmilaবিশ্বের এক নাম্বার মহিলা ধনী হিসেবে নাম লিখিয়েছেন ভারতীয় গৃহবধূ উর্মিলা। তিনি বাস করেন ভারতের কানপুরে। তার মাসিক আয় ৩০০০ টাকা। এত অল্প টাকা দিয়ে কিভাবে তিনি বিশ্বের এক নাম্বার মহিলা ধনী সে ঘটনাটাই আপনাদের কাছে শেয়ার করছিঃ

উর্মিলার মাসিক আয় ৩০০০ টাকা। সম্প্রতি তার একাউন্টে টাকা জমাদান শেষে ব্যাংক অফিসারের কাছে ব্যালেন্সশীট প্রিন্ট আউট চাইলে তাকে একটি কাগজ ধরিয়ে দেয়া হয়। অল্প শিক্ষিত মহিলা বেশী ভালো করে পড়তে পারেন না, তাই ব্যালেন্স শীট ওই অফিসারের কাছে পড়তে দিলে তিনি বললেন, নয় লাখ সাতান্ন হাজার কোটি টাকা রয়েছে তার একাউন্টে।

প্রথমে নিজের কানকে বিশ্বাস করতে পারছিলেন না উর্মিলা, পরে ব্যাংক অফিসার এই ঘটনা ঘটার সাথে সাথে তার দিকে তাকান এবং টেলিফোন ঊঠিয়ে কোথাও ফোন করা শুরু করেন। ৫ মিনিটের মধ্যে তার ব্যাংক একাউন্ট ফ্রিজ করা হয়।

ভুলটা হয়তো ওই ব্যাংকের কোন অফিসার করেছেন এই ভাবনা থেকে একাউন্ট ফ্রিজ করা। কারন একবার কারো একাউন্টে টাকা ঢুকে গেলে সেই টাকা ট্রান্সফারের কোন আইনগত বৈধতা নেই। একাউন্ট যার টাকা তার।

কিন্তু তার স্বাধের এই টাকায় জোরে ব্রেক দিলো ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। আপতত ৫ মিনিটের জন্য বিশ্বের এক নাম্বার ধনী মহিলা হয়ে নাকি উর্মিলার অনেক ভালো লেগেছিলো।

কিভাবে, কোথা থেকে টাকাটা এলো সেটা এখন পর্যন্ত কেউ বলতে পারছে না। উল্লেখ্য, নয় লাখ সাতান্ন হাজার কোটি টাকা বিল গেটস, মুকেশ অম্বানি ও লক্ষী মিত্তলের মোট সম্পত্তির থেকেও বেশী।