এসপিবি.এন নিউজ – অনলাইন ডেস্ক: পড়া না পারায় বগুড়ায় ধুনটের এক আল-রাফি (৮) নামের এক শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে জখম করেছেন দারুল উলুম কওমি মাদ্রাসার শিক্ষক ইলিয়াস আহম্মেদ। সোমবার গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়।

জানা গেছে, শিক্ষক ইলিয়াস আহম্মেদ আল-রাফিকে পাঠ্যপুস্তকের পড়া মুখস্ত পড়তে বলেন। কিন্তু আল-রাফি তা মুখস্ত না বলতে না পারায় শিক্ষক তাকে বাঁশের কঞ্চি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেন। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। এক পর্যায়ে বিক্ষুব্ধরা শিশু শিক্ষার্থীকে নির্যাতনকারী শিক্ষকসহ মাদ্রাসার অন্য শিক্ষকদের অবরুদ্ধ করে রাখেন।

খবর পেয়ে থানা পুলিশ ও পৌরসভার মেয়র এজিএম বাদশা ঘটনাস্থলে ছুটে যান। পরে উপস্থিত সবাইকে শান্ত করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন তারা।

অভিযুক্ত শিক্ষক ইলিয়াস আহম্মেদ জানান, পুরনো পড়া মুখস্ত বলতে না পারায় হালকা করে তাকে বেত দিয়ে দুই বার পিটুনি দিয়েছি। এছাড়া তাকে কোনো নির্যাতন করিনি।

এ বিষয়ে ধুনট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) খোকন কুমার কুন্ডু জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। তবে এখনও কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সূত্র: বাংলানিউজ