dhoniঅস্ট্রেলিয়া – ৩৪৮-৮ ( ৫০ ওভার)  ফিঞ্চ-১০৭; ভারত- ৩২৩ (৪৯.২ ওভার) কোহলি-১০৬, ধাওয়ান-১২৬ অস্ট্রেলিয়া ২৫ রানে জয়ী

দরকার ছিল ৭৫ বলে ৭১ রান৷ কিন্তু পরবর্তী ৪৬ রানে বাকি সব উইকেট পড়ে যাওয়ায় জেতা ম্যাচ হাতছাড়া হল ভারতের৷ বিরাট কোহলি ও শিখর ধাওয়ানের জোড়া সেঞ্চুরিও টিম ইন্ডিয়াকে হারের হাত থেকে বাঁচাতে পারল না৷ মূলত মিডল অর্ডার ও লোয়ার মিডর ব্যর্থতায় নির্দিষ্ট লক্ষ্যমাত্রার ২৫ রান দূরে থেমে গেল ধোনিদের ইনিংস৷ সেই সঙ্গে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজেও ৪-০ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়লেন তাঁরা৷

এদিন দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ওপেনিং জুটিতে রোহিত শর্মা ও ধাওয়ান শুরুটা বেশ ভালোই করেছিলেন৷ ১৬৪-র স্ট্রাইক রেটে ২৫ বলে ৪১ রান করে আউট হন রোহিত৷ এরপর ব্যাটিংয়ের হাল ধরেন কোহলি ও শিখর৷ দু’জনে মিলে ২১২ রানের পার্টনারশিপ করেন৷ এরমধ্যে দু’জনেই নিজেদের শতরান পূর্ণ করেন৷ কিন্তু ৩৭.৩ ওভারের পর হঠাৎ করে ধস নামে টিম ইন্ডিয়ার ব্যাটিংয়ে৷

দলের ২৭৭ রানের মাথায় হ্যাস্টিংসের বলে আউট হন ধাওয়ান৷ তাঁর সংগ্রহ ১১৩ বলে ১২৬৷ এরপর ব্যাট করতে নামা ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ওই ওভারের শেষ বলে শূন্য রানে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন৷ পরের ওভারে আবার ধাক্কা৷ আরেক শতরানকারী বিরাট কোহলি ৯২ বলে ১০৬ রান করে কেন রিচার্ডসনের বলে আউট হন৷ এরপর একে একে সব ব্যাটসম্যানই ব্যর্থ হন৷ রান পাননি অজিঙ্ক রাহানে(২), গুরকিরত সিং(৫)৷

শেষের দিকের ব্যাটসম্যানরাও ব্যাট হাতে রান পাননি৷ তবে রবীন্দ্র জাদেজা কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তোলেন৷ তিনি ২৪ রানে অপরাজিত ছিলেন৷ ফলে ভারতের ইনিংস ৪৯.২ ওভারে ৩২৩ রানেই শেষ হয়ে যায়৷ অজিদের পক্ষে কেন রিচার্ডসন ৬৮ রান পাঁচ উইকেট নিয়েছেন৷

এর আগে বুধবার দিনের শুরুতে টস জিতে ব্যাটিং নেন অজি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ৷ দু’ম্যাচ পর দলে ফিরেছেন ডেভিড ওয়ার্নার৷ ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই দাপটে ব্যাটিং করেন দুই অজি ওপেনার  ফিঞ্চ ও ওয়ার্নার৷ ওপেনিং জুটিতে ১৮৭ রান তোলেন দুই ওপেনার৷ মাত্র সাত রানের জন্য শতরান পেলেন না ওয়ার্নার৷ তবে ফিঞ্চ অবশ্য শতরান করেই ম্যাঠ ছাড়েন৷ ১০৭ বল খেলে ১০৭ রান করেন ফিঞ্চ৷ মারেন ৯টি চার ২টি ছয় ৷

ফিঞ্চ আউট হওয়ার পরে স্মিথ ও মার্শ কিছুটা ধরে খেলার চেষ্টা করেন৷ দলের ২৮৮ রানের মাথায় আউট হন মিচেল মার্শ(৩৩)৷ এরপর অর্ধ-শতরান করে দলের ২৯৮ রানের মাথায় আউট হন অজি অধিনায়ক স্মিথ(৫১)৷ দলের ৩১৯ রানের মাথায় আউট হন বেইলি৷ এরপর অবশ্য ধ্বস নামে অজি ইনিংসে৷পরপর আউট হন ফকনার (০) ও ওয়েড (০) ৷ কিন্তু ম্যাক্স ওয়েল(৪১) দুর্দান্ত ব্যাট করে দলের স্কোর সাড়ে তিনশোর দোরগোড়ায় পৌঁছে দেন