Huaweiবিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও বহুল ব্যবহৃত স্মার্টফোন অপারেটিং সিস্টেম হচ্ছে অ্যানড্রয়েড। গুগলের তৈরি করা এই অপারেটিং সিস্টেমে চালিত স্মার্টফোন তৈরি করছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।

স্মার্টফোন নির্মাতা চীনা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে অ্যানড্রয়েড ফোন তৈরি করে। তবে তাদের মনে হয়েছে, এর মাধ্যমে তারা অ্যানড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের ওপর অতিমাত্রায় নির্ভরশীল হয়ে পড়ছে। আর এই নির্ভরশীলতা কাটিয়ে উঠতেই গোপনে নিজস্ব স্মার্টফোন অপারেটিং সিস্টেম নিয়ে কাজ করছে হুয়াওয়ে। এ খবর জানিয়েছে স্মার্টফোনবিষয়ক ওয়েবসাইট জিএসএম এরিনা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নোকিয়ার কয়েকজন সাবেক কর্মী হুয়াওয়ের নতুন অপারেটিং সিস্টেম তৈরির জন্য কাজ করছেন। চিফ ইউজার এক্সপেরিয়েন্স ডিজাইনার হিসেবে গত বছর হুয়াওয়েতে যোগ দেন অ্যাপলের সাবেক ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর আবিগেইল ব্রডি। অ্যাপলের মোবাইল ফোন অপারেটিং সিস্টেম আইওএসের ডেভেলপমেন্টের সঙ্গে জড়িত ছিলেন তিনি।

গত বছরের আগস্ট থেকেই তিনি হুয়াওয়ের জন্য অপারেটিং সিস্টেম তৈরির জন্য দল গঠন করা শুরু করেন। তবে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি আবিগেইল।

ধারণা করা হচ্ছে, অ্যানড্রয়েড অপারেটিং থেকে সরে যাওয়ার কোনো ইচ্ছা হুয়াওয়ের নেই। তবে তারা সতর্ক ও নিরাপদে থাকতে চাইছে। কখনো যদি গুগল তার অ্যানড্রয়েড অপারেটিংয়ে কোনো কড়াকড়ি বা বিধিনিষেধ আরোপ করে, তখন যেন হুয়াওয়ে নিজেদের অপারেটিং সিস্টেমের মাধ্যমে টিকে থাকতে পারে, সে জন্যই আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়ে রাখছে তারা।

স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে স্যামসাংয়ের নিজস্ব মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে, যার নাম টাইজেন ওএস। এ ছাড়া আইফোনের জন্য রয়েছে অ্যাপলের নিজস্ব আইওএস। মাইক্রোসফটের তৈরি ফোন অপারেটিং সিস্টেম উইন্ডোজ, যা শুধু নোকিয়ার স্মার্টফোনগুলোতে ব্যবহৃত হয়।