এসপিবি.এন নিউজ – অনলাইন ডেস্ক: গোলাপগঞ্জে এক গৃহবধু তিন দিন থেকে রহস্যজনকভাবে নিখোজঁ রয়েছেন। নিখোঁজ ওই গৃহবধুর নাম জনি রাণী দাশ (২৭)।তিনি উপজেলার বাদেপাশা ইউনিয়নের দক্ষিণ আলমপুরের রঙ্গেশ দাসের স্ত্রী বলে জানা গেছে।এ ঘটনায় ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।আটককৃতরা হলেন রঙ্গেশ দাসের বড় ভাই কৃষ্ণ চন্দ্র দেব(৪০) ও তার স্ত্রী শিল্পী রাণী দেব( ২৪) কে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার থেকে রঙ্গেশ দাসের স্ত্রী জনি রাণী দাস রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ রয়েছেন। রোববার স্থানীয় কুশিয়ারা নদীতে এক নারীর মরদেহ ভেসে যেতে দেখেন স্থানীয় লোকজন। এ সময় তারা সাথে সাথে মরদেহটির ছবিও তুলে রাখে। এ বিষয়টি এলাকায় চাউর হয়ে গেলে এবং ছবি দেখে নিখোঁজ জনি রাণী দাশ বলে পরিবারের লোকজন সনাক্ত করেন।

এ বিষয়টি তাৎক্ষণিক পুলিশকে জানতে পারলে ছিটে লাশটি উদ্বার করতে, কিন্তু ততক্ষণে লাশ ভেসে চলে যায়। পুলিশ ও স্থানীয়দের সহায়তায় নদী তীরে খুঁজে বেড়াচ্ছেন লাশটি উদ্ধারের জন্য। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মরদেহের সন্ধান এখনো পায়নি পুলিশ কিংবা স্থানীয় লোকজন। ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে পুলিশ ২ব্যাক্তিকে আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ করেছে বলে জানা গেছে।

এ ব্যপারে থানার ওসি (তদন্ত) মীর মোহাম্মদ নাসের জানান, ঘটনার তদন্তের স্বার্থে এখন কিছু বলা যাবে না। সব পরে জানানো হবে। স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ির এসআই খালেদ জানান, এলাকার লোকজন মরদেহটি ভেসে যেতে দেখেছেন এবং ছবিও তুলে রাখেন।লাশ উদ্বারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।এ ঘটনায় দুজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।