rapedইসলামাবাদ: গণধর্ষণের মামলা মিটে গেল গমের বিনিময়ে। পাকিস্তানের উমরকোটের ঘটনা। ১২০০ কেজি গম দিয়ে মামলা মিটিয়ে ফেলা হয়েছে। এক ১৪ বছরের কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ দায়ের হয়েছিল।

মামলা দায়ের করেন নির্যাতিতার দাদা। এরপরই সালিশির ব্যবস্থা হয়। আদিবাসীদের মধ্যে এই পদ্ধতি ‘জিগরা’ বলে পরিচিত। যাতে বাড়ির বড়রা ক্ষতিপূরণ দিয়ে মামলা মিটিয়ে ফেলে। এলাকার এক প্রভাবশালী ব্যক্তির ছত্রছায়ায় হয় এই জিগরা।

নির্যাতিতার বাবা ক্ষতিপূরণ হিসেবে ওই গম নিতে না চাওয়ায় তাঁকে গ্রাম ছেড়ে চলে যাওয়ার কথা বলা হয়। জোর করে গম নিয়ে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য চাপ দেওয়া হয় তাঁকে। খবরটি সংবাদমাধ্যমের সামনে আসার পর থেকে তাঁকে হুমকিও দেওয়া হচ্ছে।

এলাকার পুলিশের ডেপুটি ইন্সপেকটর জেনারেল জাভেদ আলম জানিয়েছেন, ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে। নির্যাতিতার পরিবারকে নিরাপত্তাও দেওয়া হচ্ছে। গত ২১ মার্চ গণধর্ষণের মামলা দায়ের হয়েছিল। ইতিমধ্যেই মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আগেই এই জিগরা পদ্ধতিকে অবৈধ বলে ঘোষণা করেছিল পাক আদালত।