food-burnপুড়ে নষ্ট হয়ে যায় তাহলে নিঃসন্দেহে দিনের শুরুতেই মেজাজ চড়ে যাবে। এ যন্ত্রণা থেকে রেহাই পাবার উপায় কী?

ননস্টিক প্যান ব্যবহার না করলে খাবার পুড়ে প্যানের সাথে লেগে যাওয়াটা স্বাভাবিক। কিন্তু এ ঝামেলা এড়াতে ননস্টিক প্যান ব্যবহার করাটা তেমন সুবিধের না, কারণ সেক্ষেত্রে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়তে থাকে। এক্ষেত্রে কি করবেন?

আপনার ব্যবহারের স্টিলের কড়াইটাতেই রান্না করতে শিখুন যাতে খাবার না পোড়ে। সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো প্যানের তাপমাত্রা। সকালে ঘুম থেকে উঠে দিন শুরু করাটা অনেক ঝামেলা মনে হয় অনেকের কাছে। এর পাশাপাশি যদি খাবার তৈরি করতে গিয়ে

ননস্টিক ছাড়া অন্য কোন প্যানে রান্না করতে গেলে আগে তা সঠিক তাপমাত্রা পর্যন্ত গরম করে নিতে হবে। মোটামুটি ৩২০ ডিগ্রি ফারেনহাইট পর্যন্ত গেলে সে তাপমাত্রায় খাবার পুড়ে লেগে যাবে না।

কি করে বুঝবেন কড়াই যথেষ্ট গরম। পাকা রাঁধুনিদের তা বলে দিতে হয় না। কিন্তু আনাড়িরা ছোট্ট একটি কৌশল অবলম্বন করতে পারেন। এক ফোঁটা পানি নিয়ে কড়াইতে ফেলে দিন। যদি পানির ফোঁটা যেমন ছিলো তেমনই থাকে তার মানে কড়াই বেশী শীতল। পানি ফুটে উবে গেলে তার মানেও কড়াই বেশী শীতল।

কিন্তু যদি দেখেন পানির ফোঁটাটি ফুটছে এবং কড়াইয়ের ওপরে এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় ছুটছে তার মানে কড়াই যথেষ্ট গরম হয়ে গেছে। এ অবস্থায় রান্না শুরু করলে খাবার পুড়ে কড়াইয়ের তলায় লেগে যাবার চিন্তা থাকবে না। ব্যাপারটি আপনার আয়ত্তে এসে যাবে কিছুটা প্র্যাকটিস করলেই।