sharukh-khanসম্প্রতি মেয়েদের নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য করে খবরের শিরোনাম হলেন সালমান খান। তিনি শুধু একা নন, এর আগেও অনেকেই মন্তব্য করে বিতর্কিত হয়েছিলেন।

বাজে মন্তব্য করে লাইম লাইটে এসেছেন এমন বলিউড তারকাও কম নয়। বলিউড তারকাদের এমন বিতর্কিত কিছু মন্তব্য তুলে ধরা হলো—

দীপিকা পাড়ুকোন

দীপিকা পাড়ুকোন ও রণবীর কাপুরের সঙ্গে বিচ্ছেদ হওয়ার পর দীপিকা একবার বলেছিলেন, ‘আমি আমার এক্সকে কনডম উপহার দিতে চাই। সে এই জিনিসটার প্রচুর ব্যবহার করে।’

মল্লিকা শেরাওয়াত

‘মার্ডার’ ও ‘খোয়াইশ’ ছবিতে অভিনয় করার পর মল্লিকা বলেছিলেন, ‘সেই সব নায়িকাদের দুর্ভাগ্য যারা সেক্সি নন। সেক্স সিম্বল তকমা পাওয়ায় আমি খুব খুশি।’

সালমান খান

সঞ্জয় লীলা বানশালীর ‘গুজারিশ’ ছবি মুক্তি পাওয়ার পর সালমান খান বলেছিলেন, ‘কুকুরও এই ছবি দেখতে যাবে না।’

সোনম কাপুর

সকলের সামনে ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনকে ‘আন্টি’ বলে সম্বোধন করে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন সোনম কাপুর। তার মতে, যেহেতু ঐশ্বরিয়া তার বাবার নায়িকা হিসাবে ছবি করেছেন, সেই হিসাবে ঐশ্বরিয়া আন্টিই হবেন।

কারিনা কাপুর

‘ঐশ্বরিয়া আর আমি তো আলাদা জেনারেশনের। তাই তার সঙ্গে আমার কোনও তুলনাই চলে না।’ কিছুদিন আগে এমন মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন বেগম ঘরণী।

শহিদ কাপুর

কারিনা কাপুরের সঙ্গে তার ব্রেক-আপের পর একটি টিভি চ্যানেলের সাক্ষাৎকারে শহিদ বলেন, ‘যদি আমার পরিচালক গরু বা মোষের সঙ্গে অভিনয় করতে বলেন করে নেব। কিন্তু ওর সঙ্গে না।’

সোনম কাপুর

লেখিকা শোভা দে’কে অপমান করায় বিতর্কে পড়েছিলেন সোনম। বলেছিলেন, ‘ষাটোর্দ্ধ ‘পর্ন’ লেখিকাকে বলতে চাই, ওর জানা উচিত উনি কি বিষয়ে লিখছেন।’

আমির খান

নিজের ব্লগে শাহরুখ খান সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন মিস্টার পারফেক্টশনিস্টও। লিখেছিলেন, ‘শাহরুখ খান এখন আমার পা চাটছে। আর আমি ওকে বিস্কুট খাওয়াচ্ছি।’ এইটুকু বলেই নিজেই আবার সমস্ত জল্পনা পরিষ্কার করে দিয়ে লেখেন, ‘আপনারা অন্য কিছু ভাবার আগেই বলে দিতে চাই, শাহরুখ খান আমাদের কুকুরের নাম।’

শাহরুখ খান

বিতর্ক থেকে বাদ যাননি খোদ কিং খানও। একবার শাহরুখ বলেছিলেন, ‘আমি সব সময়ই পর্নস্টার হতে চেয়েছিলাম। কারণ আমি খুবই পরিশ্রমী। আমি চাইতাম বিশ্বের সেরা পর্নস্টার হিসাবে আমেরিকায় নিজের ফ্ল্যাগ ওড়াতে।’