ব্যক্তিমালিকানাধীন এই গার্লস হোস্টেলটি ১৯৯০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।

ঠিকানা ও অবস্থান
৬১/৫, তেজকুনী পাড়া, তেজগাঁও, ঢাকা ১২১৫।
মোবাইল- ০১৮১৫-৯৩১১৭৮।
তেজগাঁও থানার উত্তর দিকে হোন্ডা গলি সংলগ্ন খালেক সরণিতে এটি অবস্থিত।
হোস্টেল ভবন
পাঁচ তলা ভবনের ৩য় ও ৪র্থ তলায় হোস্টেলটি অবস্থিত। প্রত্যেক তলায় একটি করে বারান্দা আছে। হোস্টেলের প্রতি রুমে রুমের আয়তন অনুযায়ী ৩ জন, ৪ জন ও ৫ জন করে থাকে। প্রতি বেডে ১ জন এবং ডাবল বেডে ২ জন করে থাকে।
হোস্টেলের মেয়েদের অভিভাবক তথা মেহমানদের সাথে মেয়েদের সাক্ষাতের জন্য রয়েছে একটি হলরুম।
খাওয়া-দাওয়ার জন্য ডাইনিংয়ের ব্যবস্থা রয়েছে। তবে, কেউ যদি ব্যক্তিগতভাবে হালকা খাবার (যেমন- চা, ডিম, ভাজি, দুধ ইত্যাদি) রান্না করতে চায়, তবে তাকে হল সুপারের অনুমতি নিতে হয়।
হোস্টেলটিতে মোট ৬ টি টয়লেট রয়েছে। প্রতি ফ্লোরে ৩ টি করে টয়লেট। এদের মধ্যে ২ টিতে কমোড এবং ১ টিতে প্যান সিস্টেম।
হোস্টেলে সর্বদাই পানির সরবরাহ থাকে।
হোস্টেলটিতে অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা নেই।
সিট ভাড়া ও অন্যান্য চার্জ
সিঙ্গেল সিট ভাড়া ২৪০০ টাকা, ডাবল ভাড়া সিট ১৪০০ টাকা ও খাবার বাবদ ৭০০ টাকা।
সিঙ্গেল সিটে মোট ৩১০০ টাকা ও ডাবল সিটে মোট ২১০০ টাকা ব্যয় হয়।
পত্রিকা, বুয়া, সিকিউরিটি, পিএবিএক্স ইত্যাদির জন্য আলাদা কোন চার্জ দিতে হয় না।
সিট বুকিং
ক) হোস্টেলে সিট পাওয়ার জন্য হল সুপারের সাথে যোগাযোগ করতে হয়। প্রাথমিক তথ্যের জন্য কেয়ারটেকারের সাথে যোগাযোগ করতে হয়। আব্দুর রশীদ “(কেয়ারটেকার)” মোবাইল- ০১৮১৫-৯৩১১৭৮
খ) সিট খালি থাকা সাপেক্ষে সিট বুকিং দেয়া হয়।
গ) সিট পাওয়ার জন্য সর্বনিম্ন যোগ্যতা হিসেবে কলেজের ছাত্রী হতে হবে।
ঘ) সিট প্রাপ্তি নিশ্চিত করার সময় সিট ভাড়া ও খাবারের খরচ বাবদ চলতি মাসসহ এক মাসের সিট ভাড়া অগ্রিম দিতে হয়। ভর্তি ফি ১২০০ টাক।
ঙ) ভর্তি ফরমের সাথে ২ কপি ছবি ও প্রার্থী যে প্রতিষ্ঠানে পড়ে বা কাজ করে তার প্রয়োজনীয় তথ্য লাগবে। ভর্তির সময় অভিভাবক সঙ্গে থাকতে হবে।
খাবার
সময়
খাবার আইটেম
সকাল
ভাত, ডাল, সবজি, ভর্তা ইত্যাদি।
দুপুর ও রাত
ভাত, মাছ, ডাল।
মাঝে মাঝে মুরগির মাংসের ব্যবস্থা করা হয়।
নিয়মাবলী
ক) প্রতি মাসের ১ তারিখ থেকে ১০ তারিখের মধ্যে খাবার ও সিট ভাড়া দিতে হবে।
খ) কেউ যদি কম্পিউটার ব্যবহার করে থাকে তবে অগ্রিম মাসিক ৩০০ (তিনশত) টাকা দিতে হবে এবং মোবাইল ব্যবহার করা যাবে।
গ) টাকা-পয়সা, গহনা, মোবাইল নিজ দায়িত্বে রাখতে হয়।
ঘ) হোস্টেল কর্তৃপক্ষ টেবিল, চেয়ার, খাটের ব্যবস্থা করে থাকে। এক্ষেত্রে কোন চার্জ দিতে হয় না। তবে বোর্ডারদেরকে থালা, বাটি, লেপ, তোষক ইত্যাদি আনতে হয়।
ঙ) সকাল ৭ টা ও রাত ৯ টায় হাজিরা ডাকা হয় এবং রাত ১২ টার মধ্যে সকল বাতি নিভিয়ে দেয়া হয়।
চ) হোস্টেলের কোন ব্যবহার্য জিনিস ভেঙ্গে ফেললে, তার ক্ষতিপূরণ  দিতে হয়।
ছ) একজনকে অবশ্যই কমপক্ষে তিন মাস থাকতে হবে।
জ) ভর্তি ফরমে অভিভাবক হিসাবে যাদের নাম উল্লেখ করা থাকবে, তারা তাদের হোস্টেলে অবস্থানরত সদস্যের সাথে দেখা করতে পারবে।
ঝ) কর্তৃপক্ষের হোস্টেল সংক্রান্ত সিদ্ধান্তের কোন রূপ বিরোধিতা করলে ৭২ ঘন্টার মধ্যে নোটিশের মাধ্যমে সিট বাতিল করার ক্ষমতা কর্তৃপক্ষ সংরক্ষণ করে।
ঞ) সকাল ৭ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত বাইরে যাওয়া এবং ভিতরে প্রবেশ করার শর্ত শুধুমাত্র ছাত্রীদের জন্য। আর চাকুরীজীবীদের ক্ষেত্রে হল সুপারের অনুমতি নিতে হয়।
ট) এক মাসের জন্য ছুটিতে গেলে পুরো মাসের ভাড়া দিয়ে যেতে হবে। আর যদি অল্প সময়ের জন্য গেলে একদিন আগে লিখিত আবেদন পত্রের মাধ্যমে জানাতে হবে।
ঠ) সাময়িকভাবে মা/বোনকে সাথে রাখা যায় হোস্টেল সুপারের অনুমতি সাপেক্ষে।
ঢ) শুক্রবার ও যেকোন সরকারি ছুটির দিন বিকাল ৩ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত সাক্ষাতের ব্যবস্থা রয়েছে।

””’মহিলা হোস্টেল সম্পর্কিত Post গুলো   ”http://www.online-dhaka.com/”   সাইট থেকে মুলত ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের সহায়তার জন্য সংগ্রিহিত এবং প্রকাশিত। আরও আপডেটের জন্য  http://www.online-dhaka.com/  এই সাইটটিতে ভিজিট করুন…”””