যুব সমাজকে ধংস করে দিচ্ছে নারী দেহ ব্যবসায়ীরা।পুরুষহীনতাই ভোগতেছে যুবকরা।এর জন্য দ্বায় এই দেশের নারীর খুলামেলা দেহের ব্যবসায়ীরা।কারন তাদের হাতের তৈরী করা এই সব নোংরা ভিডিও যুবকরা খুব সহজেই এখন দেখতে পাচ্ছে।কারণ এ গুলো দেখতে এখন টি ভি ভিসিডি লাগেনা। লাগে শুধু মেমোরী কার্ড ওয়ালা মোবাইল।এই মেমোরী কার্ডে এই সব সেক্স সিম্বল ভিডিও লোডকরে গোপনে বন্ধুবান্ধব নিয়ে দেখে অথবা একা একা নিজেই দেখে। এই সব ভিডিও দেখতে দেখতে যুবকদের শরীরে যৌন উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। তখন ছেলেটি বাধ্য হয় হস্তমিঠুন করতে। এই হস্তমিঠুন করার ফলে যুবকদের শরীরে যৌন দূর্বলতা সৃষ্টি হয়। যার ফলে অনেক যুবকেই এখন বিয়ে করতে ভয় পাচ্ছে। হাজার হাজার যুবকেই আমার কাছে প্রশ্ন করতে শুরু করেছে। তার মধ্যে কিছু প্রশ্ন আমি আপনারদের সামনে তুলে ধরতেছি।আমি যৌন দূর্বতাই ভুকতেছি, আমি এক মিনিট ও সেক্স করতে পারিনা। আমার গনগন স্বপ্ন দোষ হয়, আমার বীর্য পাতলা হয়ে গেছে। বাবা মা আমার ঠিক করেছে কিন্ত আমার সেক্স পাওয়ার কমে গেছে, আমি কিপারব আমার স্ত্রী কে পূর্ণ তৃপ্তি দিতে?এই রকম আরও হাজারাও সমস্যার প্রশ্ন যুবকরা করতেছে। অনেকেরে আমি প্রশ্ন করে ছিলাম আপনি সেক্স ভিডিও দেখে কি না? তারা সবাই শিকার করেছে।এই সব ভিডিও দেখার কারনে যুবকদের মনে সব সময় যৌন চি্ন্তা থাকে। যার কারনে নারী ধর্ষণ দিন দিন বাড়তেছে।এই সব ভিডিও মাঝে আছে বাংলাদেশের তৈরী হট ভিডিও । এই সব ভিডিওতে অভিনয় করেছে ডাস্টবিনের ময়লা আবর্জনায় স্তুপে হতে জম্ম ভোগের বস্তু বাদী হওয়া মেয়েরা।আছে খোলা মেলা সেক্স ভিডিও। এই সব নোংরা ভিডিও যেই যুব সমাজে প্রচার হয়?সেই যুব সমাজের যুবকরা কিভাবে ভালো থাকবে?আমার বুঝে আসেনা। জানিনা এই সব বেজম্মা মডেল ও মডেলিং কারকদের হাত থেকে আমাদের যুব সমাজ কবে রক্ষা পাবে?যারা এইসব তৈরী করে তাদের ঘরে কি মা বোন ছেলে মেয়ে নেই?না কি এরা ডাস্তবিনের ময়লা আবর্জনা থেকে ওঠে এসেছে?আমার মনে হয় ওখান ঠেকেই এসেছে।তা না হলে দূর্গন্ধকে সুগন্ধ মনে করবে কেন?বর্তমান সরকারের কাছে অনুরুধ রইলো দয়া করে এই সব বেজম্মা নারীর দেহের ব্যবসায়ীদের নোংরামী বন্ধ করুন।যদি সুস্ত সুন্দর প্রজম্ম আপনি বাংলাদেশে রেখে যেতে চান?তা হলে ইসলামী শিক্ষা চালু করুন।না করলে সুফল বদলে গজবের পরিনিতি তে হবে। মনে রাখবেন আপনি এক জন মুসলিম। আমি যত টুক জানি আপনি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করেন। অন্যের জনের খোচাঁয় আরাম পেয়ে আপনার মুসলিম ভাইয়ের পেটে লাঠি মারবেন না। আপনি নিশ্চয় এই কবিতাটি পড়েছে_আমাদের দেশে সেই সন্তান জম্ম নিবে কবে? যেই সন্তান কথাই বড় না হয়ে কাজে বড় হবে। আপনি কথাই বড় না হয়ে কাজে বড় হোন।দুনিয়ার কেউ আপনার সাথে না থাকুক ? কিন্তু মহান আল্লাহ আপনার সাথেথাকবেন।কেননা তিনি ন্যায় বিচারক।তিনি কারো উপরে জলুম করেন না করবেন ও না। তিনি রাহমান তিনি রাহিম।তিনি দয়ালু তিনি দয়ালু দাতা।……..