নিঃসন্তান দম্পতিরা সন্তান উৎপাদনের জন্য নারীর গর্ভাশয় ভাড়া নিয়ে থাকেন। ভারতে নারীদের গর্ভাশয় ভাড়া দেওয়া নিয়ে রীতিমতো ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। স্বল্প খরচে গর্ভাশয় ভাড়া পাওয়ার সুবাদে বিদেশি নাগরিকদের ভারত সফরের হার সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বেড়েছে।

সাউথ অস্ট্রেলিয়ার সমাজকর্মী মার্গারেট (ছদ্মনাম) সন্তান জন্মদানে অক্ষম। শিশু দত্তক নেওয়ার দীর্ঘ চেষ্টার পর ৩৯ বছর বয়সে তিনি অন্য নারীর গর্ভাশয় ভাড়া নিয়ে সন্তান উৎপাদনের সিদ্ধান্ত নেন। এভাবেই যমজ দুই সন্তানের মা হয়েছেন তিনি। তাঁর মতো অস্ট্রেলীয় অনেক নারীই ভারতীয় নারীদের গর্ভাশয় ভাড়া নিয়ে সন্তান লাভ করেছেন। এ ছাড়া যুক্তরাজ্যসহ পশ্চিমা দেশগুলো থেকেও নিঃসন্তান দম্পতিরা একই পদ্ধতিতে সন্তানলাভের আশায় ভারতে ছুটে যাচ্ছেন।
ভারতে নারীর গর্ভাশয় ভাড়া দেওয়ার জন্য প্রায় এক হাজার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। মার্কিন সাময়িকী মাদার জোন্স সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে জানায়, গর্ভাশয় ভাড়া দেওয়া নিয়ে এখন বছরে গড়ে ২৩০ কোটি মার্কিন ডলারের ব্যবসা হয়ে থাকে। এ পদ্ধতিতে সন্তানলাভের লক্ষ্যে প্রায় ২৫ হাজার দম্পতি প্রতিবছর ভারত সফর করেন এবং এতে অন্তত দুই হাজার সন্তান জন্ম নেয়। যুক্তরাজ্যের হাডার্সফিল্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের কুইন্সগেটের সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক এরিক থি বলেন, ভারতে গর্ভাশয় ভাড়া নিয়ে বিদেশিদের সন্তান উৎপাদনের হার সরকারি হিসাবের চেয়ে বেশি।
ভারতীয় নারীরা মূলত অর্থের জন্যই গর্ভাশয় ভাড়া দিয়ে থাকেন। প্রতিটি সন্তান ধারণের বিনিময়ে তাঁরা সাধারণত ১৬ থেকে ৩২ হাজার মার্কিন ডলার নিয়ে থাকেন। জার্নাল অব সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার অ্যান্ড ফ্যামিলি ল সাময়িকী জানায়, যুক্তরাজ্য থেকে ভারতে গিয়ে স্থানীয় নারীদের গর্ভাশয় ভাড়া করে সন্তান গ্রহণের হার বাড়ছে।
বিশ্বের নবম শীর্ষ অর্থনীতির দেশ ভারতে দারিদ্র্য এখনো বড় সমস্যা হিসেবে রয়ে গেছে। দেশটিতে মাথাপিছু বার্ষিক গড় আয় এক হাজার ৫২৭ মার্কিন ডলার এবং মোট জনসংখ্যার ২৯ দশমিক ৮ শতাংশই দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস করে। নয়াদিল্লিতে অবস্থিত সারোগেসি সেন্টার ইন্ডিয়ার পরিচালক শিবানি সাচদেব গৌর মনে করেন, ভারতীয় নারীরা কেবল অর্থ নয়, অন্য একটি পরিবারকে সাহায্য করার জন্যও গর্ভাশয় ভাড়া দেন।
অস্ট্রেলিয়ার এক জরিপে বলা হয়, দেশটির দম্পতিরা ভারতীয় নারীদের গর্ভাশয় ভাড়া নিয়ে কেবল গত বছরই ২০০ শিশুর জন্ম দিয়েছেন। যুক্তরাজ্যের গবেষক মেরিলিন ক্র্যাশো বলেন, ভারতীয় নারীদের গর্ভাশয় ব্যবহার করে সন্তান উৎপাদনকারী বিদেশি দম্পতিদের প্রায় অর্ধেকই অস্ট্রেলীয়। আলজাজিরা।