Hair Fallপ্রতিদিন আমাদের সাধারণত ১০০-১২৫টি চুল এমনিতেই পড়ে যায়। এ চুল আবার গজিয়ে যায়। চুলপড়া তখনই সমস্যা যখন এর চেয়ে বেশি চুল প্রতিদিন পরে কিন্তু গজায় না। পরিবারে কারও এ সমস্যা থাকলে বংশপরম্পরায় এটি বেশি হয়ে থাকে। মেয়েদের চুল পড়াকে এনথ্রোজেনেটিক অ্যালোপিসিয়া বলে। এক্ষেত্রে মাথার উপরিভাগের চুল এবং দু’পাশের চুল পাতলা হয়ে যায়।

নানা কারণে এ চুল পড়তে পারেঃ

শারীরিক অসুস্থতা যেমন অপারেশনের পর, রক্তস্বল্পতা, ওজন কমে যাওয়া। মানসিক চাপ যেমন অতি কর্মব্যস্ততা, পরিবারে কারও মৃত্যু। থাইরয়েড হরমোনে সমস্যা। গর্ভাবস্থায়, জন্ম নিয়ন্ত্রণের পিল খাওয়া, মাসিক বন্ধ হয়ে যাওয়া। অতিমাত্রায় ভিটামিন এ, উচ্চরক্তচাপের ওষুধ খাওয়া। ক্যান্সার রোগীদের কেমোথেরাপির সময় চুল পড়ে যায়।

তবে কেমোথেরাপি শেষে চুল আবার গজিয়েও যায়। ওজন কমানোর জন্য অতিরিক্ত ডায়েটিং অনেক সময় চুল পড়ার কারণ। পুষ্টিবিদের সঙ্গে পরামর্শ করে নির্দিষ্ট ডায়েটেংয়ের সঙ্গে ভিটামিন ও মিনারেল সাপ্লিমেন্ট খাওয়া প্রয়োজন।

চুলপড়া নিয়ে ভুল ধারণাঃ

আমরা কিছু ধারণা পোষণ করি যা চুল পড়ার আদৌ কারণ নয়। সেগুলো হল বেশি শ্যাম্পু করলে চুল পড়ে। টুপি পড়ে থাকলে বা মাথায় কাপড় দিলে চুল পড়ে। প্রতিদিন ১০০ বারের মতো চুলে চিরুনি চালালে এবং চুলে কলপ ব্যবহার করলে। মাথা ন্যাড়া করলে পরের বার ঘন হয়ে চুল উঠবে। খুশকির জন্য স্থায়ীভাবে চুল পড়ে। মানসিক দুশ্চিন্তা চুলের স্থায়ী ক্ষতি করে। অল্প বয়সে চুল পড়ে না। জ্ঞানীদের চুল বেশি পড়ে।

চুল পড়ার চিকিৎসাঃ

ত্বক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেয়া। চুলের সঠিক যতœ নিন ও চুল পড়ার কারণ নির্ণয় করুন। মিনফ্রিডিল ওষুধ চিকিৎসকের নির্দেশে ব্যবহার করতে পারেন। মানসিক চাপ পরিহার করুন। সুষম খাদ্য গ্রহণ করুন। প্রয়োজনে হেয়ার ট্রান্সপ্লান্ট।

পুরুষের চুল পড়াঃ

অ্যালোপিসিয়া বা চুল পড়ে যাওয়া পুরুষের জন্য বড় সমস্যা, কারণ তাদের একবার চুল পড়ে গেলে তা সাধারণত আর গজায় না। পুরুষের বয়স, হরমোন ও জেনেটিক কারণে চুল পড়ে। এ সমস্যা সমাধানে প্রচুর গবেষণা হয়েছে এবং হচ্ছে। হেয়ার রিপ্লেসমেন্ট ও নানা ধরনের সার্জারি এখন টাক আড়াল করার জন্য করা হচ্ছে।

কারণঃ

অ্যানড্রোজেনিক অ্যালোপিসিয়া পুরুষালি হরমোন অ্যান্ড্রোজেনের কারণে চুল পড়ে। ৯৫ ভাগ ক্ষেত্রে চুল পড়ার কারণ এটি।

অ্যালোপিসিয়া এরিয়েটা সাধারণত অটো ইমিউন রোগে এমন হয়। এক্ষেত্রে মাথার জায়গায় জায়গায় চুল সম্পূর্ণ পড়ে যায়।

অ্যালোপিসিয়া টোটালিস মাথার চুল সম্পূর্ণ পড়ে যায়।

ট্রাকসন অ্যালোপিসিয়া অতিরিক্ত শারীরিক পরিশ্রম বা চুল খুব বেশি টানাটানি করলে। চুল পড়াকে বড় সমস্যা মনে না করে, টাক মাথাকে মেনে নিতে চেষ্টা করুন। তবে এখন টাক মাথার অনেক আধুনিক চিকিৎসা বের হয়েছে।

হ ডা. দিদারুল আহসান

ত্বক ও যৌনব্যাধি বিশেষজ্ঞ, আলরাজী হাসপাতাল। মোবাইল : ০১৮১৯২১৮৩৭৮