আসেন ধর্মের আফিমে আবেগ মিশিয়ে শরবত খায়, ঈমানের ডান্ডা শক্ত করে
ঢুকিয়ে দিই যেখানে সেখানে। (১৮+)

লিখেছেনঃ মৃদুভাষী (তারিখঃ সোমবার, ০৯/০৫/২০১১ – ১০:৫১)

সামাজিকতা, নৈতিকতা, বিবেকবোধ! সে আবার কি জিনিস? ধর্ম শিখুন, ধর্মে বাঁচুন। ধর্ম আপনাকে যত সুবিধা দেবে, লাভ দেবে, তা আর কিছুতে পাবেন? ধর্ম মানুন, ধর্মের মালিকের প্রসংশা করুন, তাঁর গুণগান করুন, আপনাকে তিনি সব দিবেন। আপনার মনের কোন খায়েস অপূর্ণ রবে না। তিনি আপনার জন্য ইহকালের সব কিছু সহজ করে দেবেন, জায়েজ করে দেবেন। আর পরকালে পাবেন অফুরন্ত সুখ।

আহারে নাদান মানুষ যে কেন বুঝে না! হুদাই বিবেকের প্রশ্ন তোলে, নৈতিকতার প্রশ্ন তোলে। আরে ব্যাটা মনে ঈমান আন, নবী রসুল দের জীবনী পড়, সেখ্ নৈতিকতা কারে কয়! ঈমান শক্ত কর। তোর ছোট ভায়ের বউ কে তোর পসন্দ হইছে? চাচাতো ভায়ের কিশোরী মেয়েটির বাড়ন্ত বুক দেখে তোর বুক তোলপাড় হয়? এতিম খানা থেকে নিয়ে আসা মেয়েটার ভরা যৌবন উপভোগ করার কেউ নায় বলে তোর আফসোস হয়? তোর বৌ না থাকলে চাচতো বোনের অকাল বিধবা মেয়েটার একটা সদগতি করতে পারতি? খালাত মামাত বোনরা যখন সরল মনে ভাইয়া বলে জড়িয়ে ধরে তখন তোর মন উতলা হয়ে যায়? কোনই ব্যাপার না…..।

মনে ঈমান আকিদা আন, শরিয়তী আমলে অভ্যস্ত হয়। আল্লাহকে ভয় কর, ভক্তি কর। মনে দৃঢ় বিশ্বাস তৈরি কর। নবী রাসুলদের জীবন-যাপন লক্ষ কর, নিজের জীবনে সেসবের প্রতিফলন ঘটা। মনে রাখবি ধর্মই জীবন, ধর্মই উৎকৃস্ট নীতি-নৈতিকতা শিক্ষা দেয়। ধর্মহীন জীবন পশুসম বিবেক বর্জিত জীবন। ধর্মের সুশীতল ছাঁয়াতলে আয়, সুশীতল কর নিজের অতৃপ্ত আত্মাকে। ইহকালের সমস্ত সুখ-স্বপ্ন লালসা তোর হাতের মুঠোয় আর পরকালে পাবি হুরীসমৃদ্ধ অনন্ত জৌবন। ইহকালে বেশি বেশি ধর্মের ডান্ডার ব্যবহার কর্, যারে মন চায় তার সাথে। নাহলে পরকালে ৭০ হুর চালাবি কি করে? রে, নাদান…!!!!!

Collected